হাসপাতালের পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে বিয়ে করলেন নারী চিকিৎসক

প্রেম আর ভালোবাসা দিয়ে বিশ্বের যেকোনো কিছু জয় করা স’ম্ভব। তেমনি অনেক পা’র্থক্য থাকা স’ত্ত্বেও প্রেম যে দু’জন মানুষকে এক’ত্রিত করতে পারে; তা প্রমাণ করেছেন এক দম্প’তি। তেমনই এক ঘটনা ঘটেছে বাস্তবে। এমবিবিএস পাস করার পর পেশাগত দা’য়িত্ব পালনে একটি হাসপাতালে যু’ক্ত হয়েছিলেন এক নারী চিকিৎসক। পরে তিনি ভালোবেসে বিয়ে করেছেন একই হাসপাতালের এক পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে।ব্যতি’ক্রমী এই ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তা’নের পা’ঞ্জাব প্রদেশে। ব্যতিক্রমী এই পাকিস্তানি দম্প’তির অনন্য প্রেমের গল্প ইন্টারনেটে ইতোমধ্যেই ভাই’রাল হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নারী ওই এমবিবিএস চিকিৎসকের নাম কিশওয়ার সাহিবা এবং তার স্বামী ও হাসপাতালের ওই সাফাইকর্মীর নাম শাহ’জাদ। তারা পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদে’শের ওকারা জেলার দিপালপুর শহ’রের বাসিন্দা।

মূলত কিশওয়ারই শাহজাদকে বিয়ের প্র’স্তাব দেন এবং বিয়ের পর একটি ই’উটি’উব চ্যানেলের মাধ্যমে তাদের অনন্য প্রেমের গল্প ইন্টারনেটে ভাই’রাল হয়ে যায়। ‘মেরা পাকিস্তান’ নামে একটি ইউটিউব চ্যানেলে পাকিস্তানি এই দম্পতি তাদের প্রেমের গ’ল্প শেয়ার করেছেন। সংবাদমাধ্যম বলছে, পাকিস্তানের যে হাসপাতালে কিশওয়ার সাহিবা চিকি’ৎসক হিসেবে কাজ করতেন, ওই একই হাসপাতালে পরি’ষ্কার-পরিচ্ছ’ন্ন করতে আসতেন শাহজাদ। অনেক সময় চা-না’স্তাও দিয়ে যেতেন। সেখানে দেখেই শাহজাদকে পছন্দ হয় চিকিৎসক কিশওয়ার সাহিবার।

একপর্যায়ে শাহজাদকে বিয়ের প্র’স্তাবও দেন তিনি। এরপর এক দিন বিয়ে করেন দু’জন। নিজের প্রেমের গল্প পাকিস্তানের একটি ইউ’টিউব চ্যা’নেলে ইউটিউবার হরিশ ভা’ট্টির কাছে প্রকাশ করেছেন কিশওয়ার-শাহজাদ। তাদের ভালোবাসার গ’ল্প শুনে আনন্দে ভাসছেন অনলাইন ব্যবহারকা’রীরা। নিজেদের গল্প বলার সময় স্বামী শাহজাদ স্প’ষ্ট করে জানান, এমনটা যে হতে পারে, তিনি ভাবতেই পারেননি! ভালোবাসার প্রথম প্রস্তাবটা দিয়েছিলেন কিশওয়ারই। যখন হাসপাতালে পরিচ্ছ’ন্নতার কাজ করতে এসেছিলেন শাহজাদ, তখন তার মোবাইল ন’ম্বরটা চেয়ে নেন কিশওয়ার।

You May Also Like

About the Author: Sazzamul Ahmed